তালায় পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে বাহিনী প্রধান বিদ্যুৎ বাছাড় সহ নিহত-২ : জনমনে স্বস্তি

0
622

বি. এম. জুলফিকার রায়হান, তালা (সাতক্ষীরা) : তালা থানা পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে দূর্ধর্ষ চরমপন্থী, বিদ্যুৎ বাহিনী প্রধান বিদ্যুৎ বাছাড় (৪৬) নিহত হয়েছে। একই সময় নিহত হয়ে তার সহযোগী শেখ আবু তালহা (২৬)। রোববার ভোর সাড়ে ৩টার দিকে তালা সদরের রহিমাবাদ গ্রামে লক্ষ্মন বাবুর আমবাগানে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এঘটনায় তালা থানার এএসআই শফিউজ্জামান মোহন ও কনষ্টেবল কল্যাণ দাশ আহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ অস্ত্র, গুলি, বোমা ও ডাকাতির সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে।

তালা থানার ওসি মো. হাসান হাফিজুর রহমান জানান, শনিবার গভীর রাতে তালা-মহান্দি রোডের রহিমাবাদ গ্রামে একদল সন্ত্রাসী ডাকাতের প্রস্তুতি নিচ্ছে- এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানার এসআই মো. মোজাফ্ফ্র রহমান এবং মো. নাজমুল হক’র নেতৃত্বে টহল পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়।

পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা গুলি ছুড়লে আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। প্রায় ১৫ থেকে ২০ মিনিট গুলি বিনিময় হবার পর সন্ত্রাসীরা পিছু হটে।

এসময় গ্রামের লোকজনকে সাথে নিয়ে রহিমাবাদ গ্রামে অবস্থিত হরিশ্চন্দ্রকাঠি গ্রামের লক্ষ্মন ঘোষের আমবাগানে তল্লাশি করলে ২জন অজ্ঞাত সন্ত্রাসীর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। এছাড়া একইস্থল থেকে ২টি ওয়ান-শুটার রাইফেল, ২রাউন্ড তাজা গুলি, ৪টি ককটেল, ২টি রামদাঁ সহ হাতুড়ি এবং ডাকাতির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

ওসি জানান, সকালে খোজ খবর নিয়ে যায়, নিহতদের মধ্যে ১জন তালার মাগুরা ইউনিয়নের মাগুরাডাঙ্গা গ্রামের কানাইলাল বাছাড় এর ছেলে, অত্র অঞ্চলের ত্রাস বিদ্যুৎ বাছাড় (৪৬) এবং অপরজন একই উপজেলার ইসলামকাটী ইউনিয়নের সুজনশাহা গ্রামের মনির শেখ ওরফে নুরু শেখ’র পুত্র শেখ আবু তালহা (২৬)।

নিহতদের মধ্যে আবু তালহার বিরুদ্ধে একটি নাশকতা মামলা রয়েছে। এছাড়া বিদ্যুৎ বাছাড় এর বিরুদ্ধে তালা থানায় ৫টি ডাকাতি, ৩টি অস্ত্র এবং হত্যা চেষ্টা সহ ১৪টি মামলা রয়েছে।

বিদ্যুৎ বাছাড় পূর্ববাংলা কমিউনিষ্ট পার্টি এম.এল (জনযুদ্ধ) এর সক্রিয় ক্যাডার এবং তার নিজ নামে “বিদ্যুৎ বাহিনী” একটি বাহিনী রয়েছে। বিদ্যুৎ বাছাড়া ইতোপূর্বে একাধিক বার পুলিশের হাতে ধরা পড়ে জেল হাযত খেটেছে।

রোববার সকালে নিহত চরমপন্থীদের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। এব্যপারে তালা থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

এদিকে একটি সূত্রে জানাগেছে, পূর্ববাংলা কমিউনিষ্ট পার্টি এম.এল (জনযুদ্ধ) এর খুলনা বিভাগীয় সামরিক কমান্ডার, অশোক বাহিনী প্রধান তালার জেয়ালা গ্রামের অশোক সাহা এবং একই চরমপন্থী সংগঠনের অপর ক্যাডার তালার মাগুরা অঞ্চলের বিদ্যুৎ বাহিনী প্রধান বিদ্যুৎ বাছাড় প্রায় ১ মাস পূর্বে সাতক্ষীরা জেল থেকে জামিনে বেরিয়ে আসে। এদের মধ্যে অশোক সাহা গ্রেফতারের পর প্রায় দেড় যুগ জেলে ছিল।

জামিনে এসেই অশোক সাহা ভারতে পালিয়ে গেছে এবং বিদ্যুৎ বাছাড় চরমপন্থীদের সংগঠিত করে নিজ বাহিনী সক্রিয় করার চেষ্টা চালাচ্ছিল।

গত বুধবার রাতে তালার সুজনশাহা গ্রামে গোপাল দাশের বাড়িতে গোপন বৈঠক করছিল বিদ্যুৎ বাছাড়। এবিষয়টি জানতে পেরে তালা থানা পুলিশ সেখানে অভিযান চালিয়ে বিদ্যুৎ বাছাড় ও তালহা সহ গোপাল দাশের ছেলে পলাশ দাশ (১৮) কে আটক করে। কিন্তু পুলিশের পক্ষ থেকে তাদের আটকের বিষয়টি অস্বীকার করা হচ্ছিল। তবে, চরমপন্থী ক্যাডার বিদ্যুৎ বাছাড়ের মৃত্যুতে এলাকার শান্তি প্রিয় মানুষের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here