তালায় মৎস্য ঘের দখল নিতে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে নানাবিধ ষড়যন্ত্র চালানোর অভিযোগ

0
217

নিজস্ব প্রতিবেদক, তালা: তালার বারাত মনোহরপুর বিলের মৎস্য ঘের জোর দখল নিতে একটি মহল পরিকল্পিত ভাবে ষড়যন্ত্র সহ অপপ্রচার চালিয়ে নিরিহ জমি মালিকদের হয়রানী করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। দখলবাজ গ্রুপের ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচারের ঘটনায় এলাকার মানুষদের মাঝে সহ বিলের জমি মালিক ও ঘের ব্যবসায়ীদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

উপজেলার বারাত-মনোহরপুর বিলের জমি মালিক ও এলাকার বাসিন্দা আব্দুল লতিফ, মাষ্টার জাকির হোসেন, আবজাল শেখ, ইনছাপ শেখ, জয়নুদ্দীন শেখ সহ একাধিক ব্যক্তি জানান, বারাত মনোহরপুর বিল একসময় জলাবদ্ধতার কারনে ফসলচাষ বন্ধ হয়ে যায়। এসময় কেশবপুর এলাকার বিশিষ্ট মৎস্য ঘের ব্যবসায়ী মনজুর ইসলাম এই বিলে মাছ চাষ করে একদিকে জমি মালিকদের হারির টাকা প্রদান করে অপরদিকে মাছচাষ করায় এলাকার মানুষ অর্থনৈতিক ভাবে উপকৃত হয়। তাছাড়া বোরো মৌসুমের আগেই বিল থেকে জলাবদ্ধতার পানি সেচ করে দেয়ায় বিলের জমি মালিকরা সেখানে বোরো চাষে সক্ষম হয়। সব মিলিয়ে জমি মালিকরা বোরো চাষ এবং জমির হারির টাকা পেয়ে অধিক লাভবান হয় এবং শত শত টন ধান উৎপাদনের ফলে এলাকার মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত হয়।

বিলের জমি মালিক আবজাল হোসেন জানান, বারাত মনোহরপুর বিলে মাছচাষের ডীড শেষ হওয়ায় কেশবপুর উপজেলার বিশিষ্ট আওয়ামীলীগ নেতা মহব্বত হোসেন জমি মালিকদের কাছ থেকে চলতি বছর বিধি মোতাবেক নতুন করে ডীড করে নিয়েছেন। উক্ত বিলের মৎস্যচাষ কার্যক্রম আওয়ামীলীগ নেতা মহব্বত হোসেন নিজে এবং তার পক্ষে জাহিদ হোসেন পরিচালনাক করছেন। কিন্তু এরই মধ্যে কেশবপুর এলাকার বিতর্কীত বিএনপি নেতা মোস্তাক হোসেন ও মধু গং ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ও অবৈধভাবে উক্ত বিল দখল নিয়ে সেখানে মাছচাষ করার প্রক্রিয়া চালাচ্ছে। কিন্তু জমি মালিকরা সেই ষড়যন্ত্রে বাঁধা দেওয়ায় মোস্তাক গং এবং তার পোষ্য লোকজন পরিকল্পিত ভাবে নিরিহ জমি মালিকদের হামলা, মামলা ও হুমকি দিয়ে হয়রানীর চেষ্টা চালাচ্ছে। এমনকি মহান মুক্তিযুদ্ধ ও জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান, বরেন্য বীর মুক্তিযোদ্ধাদের “কটুক্তি করা হচ্ছে” এমন কাল্পনিক তথ্য উত্থাপন করে মহান স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাসী আওয়ামীলীগ নেতা মহব্বত হোসেন সহ তাঁর পক্ষের লোকদের হয়রানী করতে এবার মাঠে নেমেছে মধু-মোস্তাক গং।

এবিষয়ে বিশিষ্ট আওয়ামীলীগ নেতা ও মৎস্যচাষী মহব্বত হোসেন জানান, তিনি সহ তার লোকজন মহান স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাসী এবং বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি সর্বদা শ্রদ্ধা সহ সম্মান প্রদানকারী। অথচ, বিএনপি নেতা মধু-মোস্তাক গং জোর পূর্বক মৎস্য ঘের দখল করার জন্য মুক্তিযোদ্ধাদের না ব্যবহার করে আমাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here