নদী দখল করে পুকুর খননে বাধা দেয়ায় নায়েব লাঞ্চিত

0
212

নিজস্ব প্রতিবেদক : মণিরামপুরের কাশিমনগর ইউনিয়নের কালারহাট ব্রিজ সংলগ্ন হরিহর নদী দখল করে পুকুর খনন করেছেন শাহাজাহান নামের এক প্রভাবশালী। গত বুধবার তিনি নদীতে স্কেভেটর বসিয়ে পুকুর খননের কাজ শুরু করেন। বিষয়টি জানতে পেরে ইউনিয়ন ভূমি অফিসের নায়েব শরিফুল ইসলাম বাধা দেওয়ায় শাহাজাহান ও তার ছেলে লিয়া অফিসে ঢুকে নায়েবকে লাঞ্চিত করেছেন বলে অভিযোগ। এই বিষয়ে উপজেলা ভূমি অফিসে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন নায়েব শরিফুল। শাহাজাহান স্থানীয় মৃত হাজের আলী মোড়লের ছেলে। নায়েব শরিফুল ইসলাম জানান, গত বুধবার সকালে স্কেভেটর বসিয়ে হরিহর নদীতে দখল দিয়ে পুকুর খনন করছিলেন শাহাজাহান। খবর পেয়ে সাথেসাথে তিনি গিয়ে কাজ বন্ধ করে দিয়ে অফিসে ফেরেন। খবর পেয়ে শাহাজাহান ও তার ছেলে লিয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসে গিয়ে তাকে প্রকাশ্যে দেখে নেয়ার হুমকি দেয়াসহ অকথ্য ভাষায় গালি দেন। নায়েব বলছেন,‘চাকরির জীবনে আমি এই প্রথম প্রকাশ্যে এভাবে লাঞ্চিত হলাম। শুধু আমার গায়ে হাত তোলা বাদে বাকি সব করেছেন শাহাজাহান ও তার ছেলে।’ তিনি বলেন,সাথেসাথে বিষয়টি সহকারী কমিশনার (ভূমি) লিংকন বিশ্বাসকে লিখিতভাবে জানিয়েছি। তারপরও ওই দিনই স্কেভেটর দিয়ে নদীতে পুকুর খনন করে ফেলেছে শাহাজাহান। এদিকে বুধবার সকালে সরেজমিন ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায়,পূর্বে ওই জায়গায় শাহাজানের ভাইরা গর্ত করে মাটি তুলে বাড়ি করেছেন। সেই থেকে শাহাজাহান জায়গাটি দখল করে রেখেছে। সে নদীর ওই জায়গায় কাউকে মাছ ধরতে দেয়না এমনকি নামতেও দেয়না। স্থানীয়রা শাহাজান ও তার ছেলে কর্তৃক নায়েব শরিফুলের লাঞ্চিত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে এই বিষয়ে শাহাজাহান ও তার ছেলের বক্তব্য জানা যায়নি। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) লিংকন বিশ্বাস জানান,লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর অভিযুক্তদের নোটিশ করে ডাকানো হয়েছে। এই বিষয়ে মঙ্গলবার দুপুরে ইউএনও স্যারের কার্যালয়ে শুনানী হয়েছে। শুনানীতে বিবাদীপক্ষ নায়েবকে লাঞ্চিত করার বিষয়ে অস্বীকার করেছেন তবে উপস্থিত স্থানীয় লোকজন ঘটনা সত্য বলে সাক্ষী দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here