নির্বাচনের পরিবেশ নেই- ফখরুল : বিএনপির রাজনীতি চোরাবালিতে- কাদের

0
219

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, নির্বাচনের জন্য রুট থাকতে হবে, তারপর রোডম্যাপ, কিন্তু সেই রুট নেই। এখনও বিরোধী দলের কথা বলার সুযোগ নেই। স্বাভাবিক রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড করার সুযোগ নেই। এখনও নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি হয়নি।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৩৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আজ (মঙ্গলবার) বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরস্থ জিয়ার মাজারে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে পুষ্পস্তবক অর্পন, ফাতেহা পাঠ ও মোনাজাতের পর মির্জা ফখরুল সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, জনগণ ঐক্যবদ্ধ। তারা ২০১৪ সালের মতো নির্বাচন হতে দেবে না, মেনে নেবে না। অবশ্য সবাইকে সমান সুযোগের মধ্য দিয়ে একটি ইনক্লুসিভ নির্বাচন হতে পারে।
ফখরুল বলেন, বিরোধীদল বিশেষকরে বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করে কারাগারে নিক্ষেপ করা হচ্ছে। এই অসম পরিস্থিতিতে দেশে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব না। তাই যেকোনো রোডম্যাপ দেয়া হোক না কেন, প্রথম শর্ত সকল দলের জন্য সমান সুযোগ দিতে হবে এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। তারপরই রোডম্যাপ নিয়ে কথা বলা সংযত হবে বলে মনে করে বিএনপি।

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি ভুলের চোরাবালিতে আটকে আছে।
আজ (মঙ্গলবার) সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, “বাংলাদেশের জনগণ জানে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির পর থেকে বিএনপির রাজনীতি চোরাবালিতে আটকে আছে।”

আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে লেভেল প্লেইং ফিল্ড তৈরিতে বিএনপির নেতাকর্মীদের মামলা প্রত্যাহারের দাবি প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, “কেউ কোন ক্রিমিনাল অফেন্স করবেন, সেটার সাথে লেভেল প্লেইং ফিল্ডের কি সম্পর্ক? আমাদের মন্ত্রীরা কেন দুদকের মামলায় আদালতে হাজিরা দিচ্ছেন? আমাদের একজন এমপির ৬ মাসের দণ্ড হয়ে গেছে। ক্রিমিনাল কেসে আমাদের আরেকজন এমপি কারাগারে অন্তরীণ। অপরাধীকে অপরাধী হিসেবেই দেখা দরকার।“

এদিকে, জিয়াউর রহমানের ৩৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আজ সকালে নয়াপল্টনস্থ কেন্দ্রীয় কার্যালয় সহ সারাদেশে দলীয় কার্যালয়গুলোতে দলীয় পতাকা অর্ধনমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। এছাড়া, ঢাকা মহানগর বিএনপির উদ্যোগে রাজধানীর ৬২ স্পটে দুস্থদের মাঝে তিনদিন খাবার বিতরণ কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। বেগম খালেদা জিয়াসহ দলের সিনিয়র নেতারা জিয়াউর রহমানের মাজারে দোয়া ও ফুলেল শ্রদ্ধা জানানোর পর ধানমন্ডিতে সুগন্ধা কমিউনিটি সেন্টারের সামনে থেকে শুরু করে ২৪টি স্পটে দুস্থ অসহায়দের মাঝে বস্ত্র ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন।
বুধবার গুলশানের ডিসিসি মার্কেট থেকে দ্বিতীয় দিনে ১৬টি স্পটে বস্ত্র ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করবেন খালেদা জিয়া।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here