বন্ধ হতে পারে আরও ছয় মেডিকেল কলেজ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

0
246

নিজস্ব প্রতিবেদক, (ঢাকা) : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, মেডিকেল শিক্ষার মানের ব্যাপারে কোনো সমঝোতা করা হবে না। চারটি কলেজ বন্ধ করা হয়েছে, প্রয়োজনে আরও ছয়টি বন্ধ করে দেওয়া হবে। তিনি বলেন, বেশ কিছু মেডিকেল কলেজে গ্রন্থাগার ও পরীক্ষাগার নেই। হাসপাতালে রোগী থাকে না। সরকারি কর্মকর্তারা পরিদর্শনে গেলে রোগী ভাড়া করে আনে। এদের কোনোটিতে শিক্ষক নেই। এখানে শিক্ষকেরা ভাড়ায় কাজ করেন। এটা চলতে পারে না।

শনিবার রাজধানীর এলজিইডি ভবনে স্টেকহোল্ডারদের নিয়ে গঠিত প্লাটফর্ম ‘হেলদি বাংলাদেশ’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদষ্টো ড. হোসেন জিল্লুর রহমানের সভাপতিত্বে শনিবার বিকালে এলজিইডি ভবন মিলনায়তনে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি দায়িত্ব নেয়ার পর চারটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজ বন্ধ করা হয়েছে। এ ধরনের মোট ১০টি মেডিকেল কলেজের মধ্যে চারটি বন্ধ করা হয়েছে অন্যগুলোকে সতর্ক করে দেয়ার জন্য। আরও ছয়টিও বন্ধ করে দেয়া হবে।’

বেসরকারি প্রতিষ্ঠান পাওয়ার অ্যান্ড পাটিরসিপেটরি রিসার্চ সেন্টার (পিপিআরসি) দিনব্যাপী দুই পর্বের এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা আরও উন্নত করার জন্য পরীক্ষার খাতায় কোড বা সংকেত ব্যবহার করার বিষয়টি মন্ত্রণালয় বিবেচনা করবে। ‘জাতীয় শারীরিক ফিটনেস দিবস’ বেছে নেওয়ার বিষয়টিও মন্ত্রণালয় বিবেচনা করবে।

ক্ষোভ প্রকাশ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে ব্যাঙের ছাতার মতো মেডিকেল কলেজ হচ্ছে। এসব বন্ধ করতে হবে। মেডিকেল কলেজগুলোতে পরীক্ষায় কোডিং সিস্টেম প্রবর্তনের ওপরও গুরুত্ব দেন তিনি।

সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের (বিএমডিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. শহীদুল্লাহ, ইব্রাহিম মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক ডা. হুমায়ুন কবির, জনস্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের প্রাক্তন পরিচালক ডা. জাফরউল্লাহ প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here