‘বিএনপির আন্দোলন খালেদার ভ্যানিটি ব্যাগে’

0
271

নিজস্ব প্রতিবেদক: সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির আন্দোলন এখন টেমস নদীর তীরে, খালেদা জিয়ার ভ্যানিটি ব্যাগে। তারা আন্দোলন কিভাবে করবে? জনগণ তো শেখ হাসিনার সঙ্গে রয়েছে।

সোমবার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা এর ৮৮তম জন্মদিন উপলক্ষে এক ছাত্রী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের ঢাবি শাখা সভাপতি আবিদ আল হাসানের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্সের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য দেন শহীদ কন্যা ডা. নুজহাত চৌধুরী, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন প্রমুখ।
বিএনপির উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, আপনারা যে এই সংসদকে অবৈধ বলেন তা কীভাবে বলেন? সংবিধান সম্মত ভাবেই আমরা নির্বাচিত হয়েছি। আপনারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেননি বলেই তো আমরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছি। এর দায়ভার কী আমাদের ওপর পড়বে। আমরা তো বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় আসতে চাই নি। এই সাংসদরাই প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি, বিচারপতি, নির্বাচন কমিশন নির্বাচন করেছেন। কিন্তু আপনারা তো সবাইকে অবৈধ বলেন না? তাহলে সংসদ সদস্যরা কেন অবৈধ হবে?
ওবায়দুল কাদের বলেন, সময়ের পরিবর্তনে বাস্তবতার প্রয়োজনে আওয়ামী লীগের কৌশল পরিবর্তন হতে পারে কিন্তু চেতনার শেকড় থেকে আমরা একচুলও সরে দাঁড়াইনি। তিনি বলেন, আমাদেরকে ভুল বুঝবেন না। আওয়ামী লীগ ভয়ঙ্কর যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের জন্য ট্রায়াল করেছে এবং তাদের মৃত্যুদন্ড কার্যকর করেছে। শেখ হাসিনা জনগণ, স্বাধীনতা এবং আদর্শের প্রতি দায়িত্ববোধ থেকে এটা করতে পেরেছেন।
তিনি বলেন, বঙ্গমাতা ব্যক্তিগত জীবনে যেমন বঙ্গবন্ধুর সহধর্মীনী ছিলেন তেমনি সহকর্মীও ছিলেন। বঙ্গবন্ধুকে তিনি একটি মুহুর্তের জন্যও ছেড়ে যাননি। তিনি বিজয়লহ্মী নারীর প্রতীক। এসময় তিনি বলেন, মুজিব পরিবার এদেশে সৎ রাজনীতির প্রতীক।
ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ছাত্রলীগে নিজেদের খুশি করার প্রবণতা রয়েছে। ছাত্রলীগের নেতাদের বক্তব্যে একঘেয়েমি রয়েছে মন্তব্য করে বক্তৃতায় বৈচিত্র আনার নির্দেশ দেন তিনি। বিলবোর্ড এবং চাঁদাবাজির অভিযোগ না থাকার জন্য ছাত্রলীগ নেতাদের উপর তিনি সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন।

ছাত্রলীগের সম্মেলনের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, অন্যদল ১০-১৫ বছর সম্মেলন করে না। আপনারা তাদের বিষয়ে খোঁজ নেন না। এসময় তিনি বলেন, ছাত্রলীগের সম্মেলনের জন্য নেতাদের কানে কানে বলে দেওয়া হয়েছে। তাদেরকে প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

ডা. নুজহাত চৌধুরী বলেন, ছাত্রলীগ যারা করবে তাদের আদর্শ বুঝতে হবে, চার মূলনীতি বুঝতে হবে, অসাম্প্রদায়িক হতে হবে। আদর্শ যদি গ্রহণ না করো তাহলে শুধু স্লোগান দিয়েই ছাত্রলীগ হওয়া যাবে না। তোমাদের কাছ থেকেই বঙ্গবন্ধু আসবে, তোমাদের মধ্যেই বসে আছে শেখ হাসিনা। ছাত্রলীগকে আপস না করার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, আপসের জন্য চরম মূল্য দিতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here