বুধবার থেকে জেএসসি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে ॥ ৯১ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষার সুযোগ পাচ্ছে না

0
219

যশোর বোর্ডের এ বছর পরীক্ষার্থী ২লাখ ২২ হাজার ৮৪৩জন শিক্ষার্থী
এম আর রকি : আজ বুধবার ১ নভেম্বর জুনিয়ার স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষা ( জেএসসি) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড সকল প্রস্তুতি গ্রহন করেছেন।এ বছর জেএসসি পরীক্ষায় যশোর বোর্ডের ১০ জেলা থেকে ২লাখ ২২ হাজার ৮শ’ ৪৩জন শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। ২৬৭টি কেন্দ্রে পরীক্ষা নেওয়ার প্রস্তুতি ইতিমধ্যে সম্পন্ন করেছে বোর্ড কর্তৃপক্ষ।পরীক্ষায় ছাত্র ১লাখ ৬ হাজার ৭শ’ ৭২জন,ছাত্রী ১লাখ ১৬ হাজার ৬৭জন। এর মধ্যে নিয়মিত শিক্ষার্থী ২লাখ ১৫ হাজার ৬শ’ ৪৫ জন আর অনিয়মিত শিক্ষার্থী ৭হাজার ১শ’ ৯৪জন।
মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাধব চন্দ্র রুদ্র জানান,চলতি বছরে জেএসসি পরীক্ষা যাতে অবাধ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয় তার জন্য ইতিমধ্যে পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্বে থাকা শিক্ষকদের দিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তিনি আরো জানান,এ বছর জেএসসি পরীক্ষায় ২লাখ ২২ হাজার ৮শ’ ৪৩জন শিক্ষার্থী অংশ নেওয়ার জন্য চুড়ান্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে খুলনা জেলায় ৫৩টি কেন্দ্রে ৩২ হাজার ৯৬২জন,বাগের হাট জেলায় ২৩ টি কেন্দ্রে ১৯ হাজার ৪শ’ ৩৫জন,সাতক্ষীরা জেলায় ২৩টি কেন্দ্রে ২৪ হাজার ৭৪৩জন,কুষ্টিয়া জেলায় ২৮টি কেন্দ্রে ২৯ হাজার ৮শ’৯৬জন,চুয়াডাঙ্গা জেলায় ১৭টি কেন্দ্রে ১৫ হাজার ৪শ’ ৪৩জন,মেহেরপুর জেলায় ১০টি কেন্দ্রে ১০ হাজার ৬শ’৭৯জন,যশোর জেলায় ৪৯টি কেন্দ্রে ৩৭হাজার ৩৩৪ জন, নড়াইল জেলায় ১৪টি কেন্দ্রে ১১ হাজার ৭শ’ ৬৫জন,ঝিনাইদহ জেলায় ৩৪টি কেন্দ্রে ২৫হাজার ২শ’ ২৯ জন ও মাগুরা জেলায় ১৬টি কেন্দ্রে ১৫ হাজার ৩শ’ ৫৩জন অংশ নিচ্ছেন। ডেপুটি পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সৈয়দ রকিবুল ইসলাম জানান,গতকাল মঙ্গলবার ৩১ অক্টোবার দুপুর পর্যন্ত পরীক্ষার্থী আরো বাড়ার সম্ভবনা রয়েছে।অপরদিকে,বোর্ডের সূত্রগুলো জানিয়েছেন,জন্ম তারিখ ভূলের কারণে এ বছর যশোর শিক্ষাবোর্ডে জেএসসি পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ হারাচ্ছে ৯১ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে যশোর জেলায় ১১জন,খুলনায় ৮,ঝিনাইদহে ৮,মাগুরায় ৫,কুষ্টিয়ায় ৭,চুয়াডাঙ্গায় ১১,নড়াইলে ৭,মেহেরপুরে ১০,বাগেরহাটে ২২ ও সাতক্ষীরা জেলায় ১১জন শিক্ষার্থী রয়েছে।সূত্রগুলো জানিয়েছেন,অত্র বোর্ডের জেএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন শিক্ষার্থীদের মধ্যে সর্বশেষ ১২০ শিক্ষার্থী বাদের তালিকায় থাকলেও গত ২৫ অক্টোবর ভূল সংশোধনের শেষ সময়ের মধ্যে না করায় বোর্ড কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের ভবিষৎতের কথা ভেবে ৩০ অক্টোবর সোমবার ২৯ জন শিক্ষার্থীদের ভূল সংশোধন করে রেজিষ্ট্রেশন কার্ড ছাপানোর ব্যবস্থা গ্রহন করেন। যার ফলে ১২০ জনের মধ্যে ২৯ জন সুযোগ পেলেও ৯১জন সুযোগ থেকে বঞ্চিত হওয়ায় তারা একেবারে এ বছর জেএসসি পরীক্ষার সুযোগ হারিয়েছে। বোর্ড সূত্রে আরো জানাগেছে,এবার জেএসসি পরীক্ষায় যারা কেন্দ্রে সচিব ও হলে দায়িত্ব পালন করবেন তাদেরকে ইতিপূর্বে নিয়ম কানুনের বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।আজ বুধবার ১ নভেম্বর জেএসসি পরীক্ষায় বাংলা কোড নং ১০১ অনুষ্ঠিত হবে। আগামীকাল ২ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বাংলা ২য় পত্র কোড নং ১০২,রবিবার ৫ নভেম্বর ইংরেজি ১ম পত্র কোড নং ১০৭,সোমবার ৬ নভেম্বর ইংরেজি ২য় পত্র কোড নং ১০৮,মঙ্গলবার ৭ নভেম্বর ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা কোড নং ১১১,হিন্দুধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা কোড নং ১১২,বৌদ্ধধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা কোড নং ১১৩,খ্রিস্টধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা কোর্ড নং ১১৪,আগামী ৮ নভেম্বর বুধবার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি কোড নং ১৫৪জন, ৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বিজ্ঞান কোড নং ১২৭, শনিবার ১১নভেম্বর কর্ম ও জীবনমুখী শিক্ষা (অনিয়মিত পরীক্ষার্থীদের জন্য প্রযোজ্য) কোড নং ১৫৫, রোববার ১২ নভেম্বর গণিত কোড নং ১০৯, সোমবার ১৩ নভেম্বর শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য (অনিয়মিত পরীক্ষার্থীদের জন্য প্রযোজ্য ) কোড নং ১৪৭, মঙ্গলবার ১৪ নভেম্বর কৃষি শিক্ষা কোড নং ১৩৪,গার্হস্থ্য বিজ্ঞান কোড নং ১৫১,আরবি কোড নং ১২১, সংস্কৃত কোড নং ১২৩, পালি কোড নং ১২৪,বৃহস্পতিবার ১৬ নভেম্বর বাংলাদেশ বিশ্ব পরিচয় কোড নং ১৫০ ও ১৮ নভেম্বর শনিবার চারু ও কারুকলা (অনিয়মিত পরীক্ষার্থীদের জন্য প্রযোজ্য) কোড নং ১৪৮ অনুষ্ঠিত হবে। উল্লেখিত তারিখে সকাল ১০ টা থেকে পরীক্ষা শুরু হবে বলে সূচীতে উল্লেখ করা হয়েছে।#

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here