বৃষ্টিতে আবার পাহাড়ধসের অাশঙ্কা

0
279

নিজস্ব প্রতিবদেক: বৃষ্টিতে আবার পাহাড়ধসের আশঙ্কা প্রকাশ করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। আজ বৃহস্পতিবার পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ আশঙ্কার কথা জানানো হয়।

গত মাসে রাঙামাটিসহ তিন পার্বত্য জেলায় টানা বৃষ্টির কারণে পাহাড়ধসে ১৫০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়।
পাহাড়ধসের আশঙ্কা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে আবহাওয়াবিদ কালাম মল্লিকৃ বলেন, ‘কয়েকদিন ধরে থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। আরও কয়েক দিন বর্ষণ হতে পারে। এর ফলে আশঙ্কা করছি পাহাড়ধসের।’

আবহাওয়া অফিস জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ১৭৬ মিলিমিটার। এ ছাড়া সন্দ্বীপে ১৫৪ মিলিমিটার, ফেনীতে ১৪৯ মিলিমিটার, কুতুবদিয়ায় ১১৮ মিলিমিটার, কক্সবাজারে ১০৫ মিলিমিটার ও টেকনাফে ১০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

এ ছাড়া আজ সকাল নযটা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়া পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হতে পারে।

এদিকে বৃহস্পতিবার আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেওয়া হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সব ধরনের মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়া চিত্রের সংক্ষিপ্তসারে বলা হয়, উড়িষ্যা উপকূল ও তৎসংগ্ন এলাকায় অস্থানরত স্থল নিম্নচাপটি উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে ভারতের মধ্যপ্রদেশ এলাকায় লঘুচাপে পরিণত হয়ে মৌসুমি বায়ুর অক্ষের সঙ্গে মিলিত হয়েছে। মৌসুমি বায়ুর অক্ষ রাজস্থান, উত্তর প্রদেশ এবং লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল বিহার, গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে উত্তরপূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত হয়েছে। বাংলাদেশের ওপর মৌসুমি বায়ু সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসগরে তা প্রবল অবস্থায় রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here