ভালোবাসায় চিরবিদায় নিলেন বর্ষীয়ান রাজনৈতিক শরীফ আব্দুর রাকিব, জেলা ক্রীড়া সংস্থার শোক

0
475

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরবাসীর ভালোবাসায় চিরবিদায় নিলেন বর্ষীয়ান রাজনৈতিক অ্যাড. শরীফ আব্দুর রাকিবের জানাজা শেষে শুক্রবার বিকালে কারবালা গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
শুক্রবার ভোওে শরীফ আব্দুর রাকিবের যশোর ঘোপের বাসভবনে পৌছে। এসময় তাকে শেষ বারের মত দেখতে এবং শোকাহত পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানানোর জন্য বাসায় যান বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম,আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য পীযুষকান্তি ভট্টাচার্য,জেলা সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা অ্যাডভোকেট মাহবুব আলম বাচ্চু, জাসদের কার্যকরী সভাপতি অ্যাডভোকেট রবিউল আলম, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, অ্যাডভোকেট খান টিপু সুলতানের স্ত্রী ডা. জেসমিন আরা বেগম, কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আমির হোসেন, মণিরামপুর পৌরসভার মেয়র অধ্যক্ষ মাহমুদুল হাসান, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট কাজী আব্দুস শহীদ লাল, সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট দেবাশীষ দাস, আইনজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম এ গফুর, নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক শাহানুর রহমান শাহিন, রাইটস যশোরের নির্বাহী পরিচালক বিনয়কৃষ্ণ মল্লিকসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, পেশাজীবি নেতৃবৃন্দ।




বেলা সোয়া ১২টায় তার মরদেহ আনা হয় যশোর জেলা আইনজীবী সমিতি কার্যালয় চত্বরে। সেখানে জেলা আইনজীবী সমিতিসহ আইনজীবীদের সংগঠনগুলো এবং রাইটস যশোর, দীর্ঘদিনের সহকর্মীরা মরহুমের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তারপর মরদেহ নেওয়া হয় জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে। সেখানে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে কফিনে শ্রদ্ধার্ঘ দেওয়া হয়। জুম্মাবাদ নেয়া হয় যশোর কেন্দ্রীয় ঈদগাহে। সেখানে অনুষ্ঠিত হয় নামাজে জানাজা। এতে বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম, সাবেক গণপরিষদ সদস্য মঈনুদ্দিন মিয়াজী, জাতীয় সংসদের সাবেক হুইপ অধ্যক্ষ শেখ আব্দুল ওহাব, সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম, জেলা ও দায়রা জজ আমিনুল ইসলাম, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সাইফুজ্জামান পিকুল, জেলা প্রশাসক মো. আশরাফ উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, জেলা আইনজীবী সমিতির সদ্য নির্বাচিত সভাপতি অ্যাড. মুহম্মদ ইসহক, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহানুর রহমান শাহিন, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. এম এ গফুর, প্রেসক্লাব সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুল হুদা, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, জাসদের (ইনু) কার্যকরী সভাপতি রবিউল আলম, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা এম এ মজিদ, প্রবীণ রাজনীতিক অ্যাডভোকেট কাজী আব্দুস শহীদ লাল, ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য ইকবাল কবির জাহিদ, পৌরসভার মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু, নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মুনির আহমেদ সিদ্দিকী বাচ্চু, জাগপার কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি নিজামউদ্দিন অমিতসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক-সাংস্কৃতিক-পেশাজীবী-যুব-ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীসহ বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশ নেন।
এছাড়া জানাজাস্থলে হাজির ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট পীযূষকান্তি ভট্টাচার্য, সংসদ সদস্য স্বপন ভট্টাচার্য্য, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহিতকুমার নাথ, রাইটস যশোরের নির্বাহী পরিচালক বিনয়কৃষ্ণ মল্লিক প্রমুখ।
জানাজার আগে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন এমপি মনিরুল ইসলাম, মরহুমের ভগ্নিপতি গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ লুৎফর রহমান বাচ্চু এবং ভাই শরীফ রবিউল ইসলাম রবি। জানাজা পড়ান ঘোপ সেন্ট্রাল রোড জামে মসজিদের ইমাম মুফতি আব্বাসউদ্দিন। আগামী রোববার বাদআসর মরহুমের ঘোপের বাসভবনে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে বলে জানাজা শেষে জানানো হয়। জানাজা শেষে যশোরের বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন। পরে দাফনের উদ্দেশে মরদেহ নেওয়া হয় কারবালা গোরস্থানে। সেখানে তাকে দাফন করা হয়।
প্রসঙ্গত. বুধবার রাত ১১টার দিকে তার বড় মেয়ে মেহনুমা জেবিন রাখির বাসায় অবস্থানের সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হন শরীফ আব্দুর রাকিব। রাত সাড়ে ১২টার দিকে তাকে গুলশানের অ্যাপোলো হাসপাতালে নেওয়া হয়। তখন থেকেই তিনি হাসপাতালটির সিসিইউতে ছিলেন। বৃহস্পতিবার রাত নয়টার সময় রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালের ডাক্তাররা তার লাইফ সাপোর্ট খুলে দেন। এর প্রায় এক ঘণ্টা পর রাত দশটায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন। শরীফ আব্দুর রাকিব বেশ কয়েক বছর ধরে কিডনি জটিলতায়ও ভুগছিলেন। একদিন পর পর তাকে ডায়ালিসিস নিতে হতো।
শরীফ আব্দুর রাকিবের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন রাইটস যশোরের নির্বাহী পরিচালক বিনয়কৃষ্ণ মল্লিক। তিনি মরহুমের শোকসন্তপ্ত পরিবার-সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা এবং বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থার পক্ষে সাধারন সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা ইয়াকুব কবির। জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা) নেতৃবৃন্দ। বিবৃতিদাতা হলেন, জাগপার কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও যশোর জেলা শাখার প্রতিষ্ঠাতা নিজামদ্দিন অমিত,সাধারণ সম্পাদক কামাল চৌধুরী, সহ-সভাপতি ইদ্রিস মৃধা, নূরজাহান ইসলাম, সাবিত্রী বিশ্বাস, বজলু হাওলাদার, খন্দকার আলমগীর হোসেন আলম, সহ-সাধারণ সম্পাদক খন্দকার জাহিদ হাসান, শেখ কাইয়ুম আলী, আব্দুল মজিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আনোয়ার হোসেন মধু, প্রচার সম্পাদক শাহজাহান মল্লিক, দপ্তর সম্পাদক ডাক্তার রবিউল ইসলাম, অর্থ সম্পাদক আফসানা ইয়াসমি, অনুরূপা, সহ-সাংগঠনিক সম্পাক কাজী জাবেদ, সহপ্রচার সম্পাদক সৈয়দ মঞ্জুর হাসান রাব্বু প্রমূখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here