যশোরে যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগে স্বামীশ্বশুর শ্বাশুরীর বিরুদ্ধে মামলা

0
250

বিশেষ প্রতিনিধি : এক কন্যা সন্তানের জননী গৃহবধূ শামীম আক্তার কে যৌতুকের কারণে স্বামী শ্বশুর ও শ্বাশুরী নির্যাতন করায় কোতয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার গৃহবধূ যশোর সদর উপজেলার মুড়োলী জোড়া মন্দির গামার বাড়ির ভাড়াটিয়া শামীমা আক্তার বাদি হয়ে স্বামীসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। মামলার আসামীরা হচ্ছে,বিদেশ প্রত্যাবর্তন স্বামী সদর উপজেলার আবাদ কচুয়া বিশ্বাস পাড়ার মাদ্রাসার সামনে রেজাউল করিমের ছেলে হুমায়ূন কবির,শ্বশুর রেজাউল করিম ও শ্বাশুরী লূৎফুন্নেছা।
গৃহবধূ তার দায়েরকৃত এজাহারে বলেছেন, গত ২০১৩ সালে ২২ অক্টোবর হুমায়ূন কবিরের সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের ৪ মাস পর স্বামী হুমায়ূন কবির কুয়েতে যাওয়ার জন্য স্ত্রী শামীমা আক্তারের কাছে ৩লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। টাকা না দেওয়ায় শামীমা আক্তারের উপর স্বামী ও তার মা বাবা নির্যাতন শুরু করে। মেয়ের সুখের কথা ভেবে গৃহবধূর পিতার পরিবার বিভিন্ন সময়ে হুমায়ূন কবিরকে যৌতুক বাবদ ২লাখ টাকা প্রদান করে। স্বামীর পরিবার বাদির ৩ভরি স্বর্ণালংকর গৃহবধূর কাছ থেকে নিজের হেফাজতে নিয়ে বাকী ১লাখ টাকার জন্য নির্যাতন শুরুর এক পর্যায় বাপের বাড়িতে চলে যায়। গত ২১ নভেম্বর স্বামী হুমায়ূন কবির বিদেশ হতে বাড়িতে চলে আসে। স্বামী আসার সংবাদ শুনে গৃহবধূ তার এক মেয়ে সন্তান নিয়ে স্বামীর বাড়িতে আসে। আসার পর স্বামীসহ সহযোগীরা বাকি ১লাখ টাকার জন্য নির্যাতন শুরুর এক পর্যায় স্বামী হুমায়ূন কবির গলা টিপে হত্যার চেষ্টা চালায়। শামীমার বাপের বাড়ির লোকজন খবর শুনে গৃহবধূকে উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দিয়ে মামলা দায়ের করেন।#

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here