যশোরে ৭২ ঘন্টায় নবজাতকসহ ৫জনের লাশ উদ্ধার

0
341

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোরে ৭২ ঘন্টায় পুলিশ নবজাতকেরসহ পাঁচজনের লাশ উদ্ধার করেছে। তারা হলেন, যশোর শহরের নীলগঞ্জ তাঁতীপাড়ার মোতলেব হোসেনের স্ত্রী ছয় মাসের অন্তস্বত্ত্বা আম্বিয়া খাতুন(২৫), যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি উত্তর পাড়ার জুয়েলের স্ত্রী শান্তা (২০), শহরের ওয়াপদা কারবালার আজিজুর রহমানের মেয়ে নুসরাত (৫), ঝিকরগাছার শিমুলিয়া আন্দোলপোতা গ্রামের সুলতান সর্দারের মেয়ে শারমিন আক্তার মিম(১৩) এবং যশোর মাগুরা সড়কের বাহাদুরপুর বাংলা লিংক টাওয়ারের বিপরীতের ড্রেন থেকে ৫ মাসের নবজাতক।

হাসপাতাল ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আম্বিয়া খাতুন মঙ্গলবার রাতে ঘরের মধ্যে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে। বুধবার বিকাল ৪টার দিকে যশোর কোতয়ালি থানার এসআই জিয়ারত হোসেন লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করেন। কি কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন তা পুলিশ জানাতে পারেননি।

শান্তা (২০) বুধবার সকাল ১০টার দিকে বাড়িতে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে জরুরী বিভাগে নিয়ে আসলে ডাক্তার রাজিব কুমার পাল তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এসআই বাবুল চন্দ্র শান্তার মৃত্যু নিশ্চিত করে বলেছেন, শান্তার স্বামী তার আপন চাচত ভাই। ৬ মাসে তাদের বিয়ে হয়। কি কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন এই মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না।

নুসরাত (৫) চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঈদের দিন অর্থাৎ সোমবার বিকালে যশোর জেনারেল হাসপাতালে মৃত্যু হয়।

নিহতের মামা জানান, শনিবার সন্ধ্যায় বাড়িতে নুসরাত ও তার বোন ইশরত খেলা করছিল। এসময় অসাবধানবসত টেলিভিশনের ট্রলি ধরে টান দিলে টেলিভিশনটি নুসরাতের মাথার উপর পড়ে। এতে গুরুতর আহত হলে তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সোমবার বিকালে ইন্টানি চিকিৎসক অনন্যা নুশরাতের মৃত্যু ঘোষণা করেন।

শারমিন আক্তার মিম সোমবার গভীর রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেছেন। নিহতের মামা কামাল হোসেন জানান, শারমিন বেনাপোল মরিয়ম মেমোরিয়াল বালিকা বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে। সে এলাকার একটি ছেলেকে ভালবাসতো। এ নিয়ে সোমবার সকালে তার মা বকাবকি করে। ওই দিন দুপুরে শারমিন কীটনাশক পান করে।

কোতয়ালি থানার এসআই অরুন কুমার দাশ শারমিনের মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করেন। যশোর উপশহর ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আব্দুর রহিম জানান, বুধবার সকাল ১১টায় স্থানীয়দের সংবাদের ভিত্তিতে বাহাদুরপুর বাংলা লিংক টাওয়ারের বিপরীত পাশে ড্রেন থেকে পাঁচ মাসের নবজাতকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। অবৈধ গর্ভজাত সন্তান হওয়ায় কেউ হয়তো ওই ড্রেনে লাশ ফেলে গেছে বলে তিনি দাবি করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here