কুষ্টিয়ার বাড়িটিতে মূল অভিযান শুরু, বিকট শব্দ

0
315

কুষ্টিয়া অফিস : জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলায় বামনপাড়া তালতলা এলাকায় ঘিরে রাখা বাড়িটিতে মূল অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। আজ সন্ধ্যা ৬টা ১০ মিনিটে এই অভিযান শুরু হয়। ৬টা ১১ মিনিটের সময় সেখানে বিকট শব্দ শোনা যায়।

পুলিশ সূত্র বলছে , জেলা পুলিশসহ ঢাকা থেকে আসা বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দলে সদস্যরা অভিযানে অংশ নিচ্ছেন। ওই বাড়িটিতে ছাদ ঢালাইসহ একটি ঘরের দুটি কক্ষ রয়েছে। অন্যটি টিনশেডের কক্ষ। বাড়ির ভেতরে ঢুকে মূল অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।

অভিযান শুরুর আগে ওই জঙ্গি আস্তানার চারপাশে ৫০০ মিটার এলাকাজুড়ে ১৪৪ ধারা জারি করে উপজেলা প্রশাসন। ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মিজানুর রহমান বলেন, জনগণের জানমালের নিরাপত্তার জন্য ঘিরে রাখা ভবনটির আশপাশ জুড়ে ৫০০ মিটার এলাকায় যানবাহন ও মানুষের চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই আদেশ বলবৎ থাকবে। ইতিমধ্যে ওই এলাকায় অবস্থানকারী পরিবারগুলোকে সরিয়ে আনা হয়েছে।

এর আগে আজ বিকেল সোয়া পাঁচটার দিকে ঢাকা থেকে বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। দলটি শুরুতে টিনশেডের বাড়িটি রেকি বা পর্যবেক্ষণ করে।

জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ওই বাড়ি শুক্রবার রাত থেকে ঘিরে রাখে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এই বাড়ি থেকে এ পর্যন্ত তিন নারীকে আটক করা হয়েছে। তাঁদের পরিচয় জানা গেছে।

এর আগে নাম প্রকাশ না করার শর্তে পুলিশের এক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, আটক হওয়া তিন নারী হলেন টলি আরা, নব্য জেএমবির আমির আইয়ুব বাচ্চুর স্ত্রী তিথি ও জঙ্গি তালহার স্ত্রী সুমাইয়া। বাড়িটির দুটি কক্ষ ভাড়া নিয়েছিলেন টলি আরা। তিথি ও সুমাইয়াকে ননদ পরিচয়ে ভাড়া বাসায় নিয়ে আসেন তিনি। তিথির সঙ্গে চার মাসের এক শিশু ছিল। টলি আরার সঙ্গে ছিল ছয় বছরের একটি শিশু।

ওই বাড়ি ঘিরে রাখার পর থেকে এ পর্যন্ত একটি পিস্তল, তিনটি ম্যাগাজিন, দুটি সুইসাইড ভেস্টসহ বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধার করা হয়েছে বলে খুদে বার্তায় জানায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here