দু’বছরেও হদিস নেই হরিনাকুন্ডুর চাউল ব্যবসায়ি নজিরের!

0
290

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঝিনাইদহ: নিখোঁজের দুই বছর অতিবাহিত হলেও খোঁজ মেলেনি ঝিনাইদহ হরিনাকুন্ডু উপজেলার নজির বিশ্বাসের। সে উপজেলার নারায়ন কান্দি গ্রামের মৃত মোবারক বিশ্বাসের ছেলে। সে গ্রামের নর্জরল ইসলামের কাছ থেকে ১৩ শতক জমি ক্রয় করে, তবে এই জমি নজরুল ইসলাম পুনরায় আবার একই গ্রামের মুকতার আলীর ছেলে মাহবুবের কাছে বিক্রি করে। যে কারনে নজির বিশ্বাস ঝিনাইদহের ল্যান্ড সার্ভেয়ার আদালতে নজরুলের নামে মামলা করে। যার মামলা নং ১৫৫/১৫। মামলার প্রথম দিনে ঝিনাইদহ আদালতে আসলে সে নিখোঁজ হয় ।

নিখোঁজ নজির বিশ্বাস ২০১৫ সালের জুলাই মাসের ১২ তারিখে জমিজমা সংক্রান্ত মামলা করতে ঝিনাইদহ আদালতে আসে। প্রায় ১১ দিন তার সন্ধান না পেয়ে অবশেষে ২০১৫ সালের ২৩ শে জুলাই ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডু থানায় তার ছেলে আশরাফুল এজাহার দাখিল করে। যার মামলা নং ১১। নিখোঁজ নজির পেশায় একজন চাউল ব্যবসায়ি ।

নিখোঁজের দিন দুপুর সাড়ে ১২ টার ঝিনাইদহ আদালত থেকে বাড়ি ফেরার সময় পথিমধ্যে দুপুর ১ টার দিকে হরিনাকুন্ডু চাঁদপুর গ্রামের এন এস বি ইট ভাটার কাছে পৌছালে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা নজির কে অপহরন করে নিয়ে যায়। অপহরনের পরদিন ০১৮৩৬-৮৬৭৭২৬ ও-০১৯১২-৫০৩৯০০ নম্বর মোবাইল থেকে ফোনে জানানো হয় আশরাফুল তোর বাবা কে জীবিত পেতে হলে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপন দিতে হবে ।

এ ব্যপারে মামলার বাদী আশরাফুল জানান, জমি নিয়ে যাদের নামে মামলা করা হয় তারা খুবই প্রভাবশালী ব্যাক্তি। বর্তমানে মামলাটি সিআইডি বিভাগ তদন্ত করছেন। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী সি আই ডি কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ বলেন, মামলার বাদী আশরাফুল মামলায় কোন আসামীর নাম উল্লেখ না করায় সন্দেহমূলক ভাবে কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে জিঙ্গাসা করা হয়। কিন্তু তাদের কাছ থেকে তেমন কোন তথ্য পাওয়া যায়নি ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here