গ্রামীণফোনের সিএফও হলেন কার্ল এরিকব্রোতেন

0
240

নিজদস্ব প্রতিবেদক: গ্রামীণফোনের প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা (সিএফও) হলেন কার্ল এরিকব্রোতেন। গ্রামীণফোনের বোর্ড আগামী ১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ থেকে কার্ল এরিকব্রোতেনকে এর প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা (সিএফও) পদে নিয়োগ অনুমোদন করেছে। তিনি দিলীপ পালের স্থলাভিষিক্ত হবেন। দিলীপ টেলিনর এর থাই মোবাইল অপারেটর ডিট্যাকএর সিএফও পদে যোগ দিচ্ছেন।

গ্রামীণফোনে নিয়োগ পাবার আগে কার্ল এরিকব্রোতেন, টেলিনর এর মালয়শিয়ান মোবাইল অপারেটর ডিজি এরসিএফও ছিলেন। এর আগে তিনি টেলিনর পাকিস্তান এবং টেলিনর হাঙ্গেরি এর সিএফও ছিলেন। টেলিনর গ্রুপে ২০ বছরের বেশি অভিজ্ঞতা সম্পন্ন কার্ল টেলিনর নরওয়ে, টেলিনর বিজনেস সলিউশনস, রাশিয়াতে টেলিনরের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানে উচ্চপদে নিযুক্ত ছিলেন।

কার্ল এরিকব্রোতেন বলেন, ৬ কোটিরও বেশি মানুষকে টেলিযোগাযোগ এবং ডিজিটাল সেবা প্রদানকারী এই প্রতিষ্ঠানে যোগ দিতে পেরে আমি সম্মানিতবোধ করছি। দীর্ঘদিন ধরে অসাধারন ব্যবসায়িক ফলাফল প্রদান করে আসা এইটিমে যোগদান করতে পেরে আমি উজ্জীবিত। নতুন প্রজন্মের প্রযুক্তিতে প্রবেশ করতে যাওয়া এই বাজারে আমাদের পথ চলা হবে উত্তেজনাময়।

নরওয়ের অ্যাগডের ইউনিভার্সিটি কলেজ থেকে তিনি আন্তর্জাতিক ব্যবস্থাপনায় ব্যবসায় প্রশাসন ডিগ্রী অর্জন করেন।

এছাড়াও গ্রামীণফোনের ফিনান্সিয়াল একাউন্টিং এন্ড রিপোর্টিং শাখার পরিচালক মুস্তাফা আলিম আওলাদকে কোম্পানির ডেপুটিসিএফও নিয়োগ দেয়া হয়েছ। তিনি ২০১৩ সালে পরিচালক কর্পারেটফিনান্স এন্ড ট্রেজারি হিসেবে গ্রামীণফোনে যোগ দেন। ব্যাংকিং ও অন্যান্য আর্থিক খাতে দেশে বিদেশে তার দীর্ঘ অভিজ্ঞতা আছে।তিনি যেসব প্রতিষ্ঠানে কাজ করেছেন তাদের মধ্যে আছে কেপিএমজি, বার্কলেজ ব্যাংক, এইচএসবিসি, এবি ব্যাংক ইত্যাদি।

কার্ল এবং মুস্তাফাকে নিজ নিজপদে স্বাগত জানিয়ে গ্রামীণফোনের সিইও মাইকেল ফোলি বলেন, আমি কার্লকে বাংলাদেশ এবং গ্রামীণফোন পরিবারে স্বাগত জানাতে পেরে আনন্দিত। এশিয়া এবং ইওরোপিয়ান বাজারে তার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার সাথে বাংলাদেশের আর্থিক বাজারের বিপুল অভিজ্ঞতা গ্রামীণফোনকে বাংলদেশের নেতৃস্থানীয় ডিজিটাল সেবা গ্রদানকারী প্রতিষ্ঠান হবার দিকে পথ দেখাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here