যশোরে ভূয়া কবিরাজ সেজে স্বর্ণালংকর লুটপাট, ১১দিন পর প্রতারক গ্রেফতার

0
211

বিশেষ প্রতিনিধি : কবিরাজীর নামে যশোরের পল্লীর দুই বাড়ি থেকে স্বর্ণালংকর নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার ১১ দিন পর প্রতারক সেলিম ধরা পড়েছে। তাকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। সে যশোরের অভয়নগর উপজেলার ধোপাদী দপ্তরী পাড়ার সামাদ মোল্যার ছেলে।
গত ৪ এপ্রিল সকাল ১০ টায় প্রতারক সেলিম নিজেকে কবিরাজীর নাম করে সদর উপজেলার ঘুনি দোলনঘাটা গ্রামের মৃত আব্দুল হাই দফাদারের বাড়িতে প্রবেশ করে। উক্ত বাড়ির ছেলে টিটো অসুস্থ্যর কথা বলে তার মাতা কোহিনুর বেগম। সেলিম নিজেকে কবিরাজ ও সুস্থ্য করার কথা বলে ১ জোড়া কানের দুল,১টি চেইন,১লকেটসহ ৩ভরি স্বর্ণালংকর নিয়ে পাশ্ববর্তী পদ্মবিলা গ্রামের জাহাঙ্গীর সরদারের বাড়িতে বিকেল ৪ টায় প্রবেশ করে। উক্ত বাড়ির গৃহিনী সখিনা বেগমকে নিজেকে কবিরাজ দাবি করে। সখিনা তার ছেলে জাহিদ অসুস্থ্যর কথা বলে। তাকে সুস্থ্যতার কথা বলে উক্ত বাড়ি হতে কৌশলে ১ জোড়া সোনার বালা,১টি চেইনসহ ৩ভরি স্বর্ণালংকর নিয়ে সটকে পড়ে। পরবর্তীতে শনিবার ১৫ এপ্রিল সকাল সাড়ে ৮ টায় বসুন্দিয়া মোড় প্রতারক সেলিমকে কোহিনুর বেগম ও জাহাঙ্গীর সরদারের স্ত্রী সখিনা বেগম দেখে তাকে ধরে ফেলে। পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে। গণধোলাইয়ের এক পর্যায় সেলিম ঘটনা স্বাীকার করে। পরে তাকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। তাকে থানায় সোপর্দ করে শনিবার নিয়মিত মামলা দায়ের করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here