সেলফি তুলতে সুন্দরীর কাণ্ড

0
253

ম্যাগপাই নিউজ ডেক্স : সেলফিতে আসক্ত প্রজন্মের কথা কে না জানেন। সারাদিন সেলফি তুলতে তাদের কোনো ক্লান্তি নেই। এমনকি বিপজ্জনক সেলফি তোলার নেশাতেও পেয়ে বসে অনেকের। কিন্তু একটা মনের মতো সেলফি তুলতে আপনি কত দূর যেতে পারেন? যত দূরই যান না কেন, এই রাশিয়ান সুন্দরীর মতো সাহস দেখানোর মতো সাহস আপনার নিশ্চয়ই নেই। সেলফি তুলতে তার কাণ্ড দেখে যেকোনো মানুষের চক্ষু ছানাবড়া হতে বাধ্য।

স্রেফ সোশাল মিডিয়ায় কয়েকটি ছবি তুলতে কেউ কি দুবাইয়ের কোনো আকাশছোঁয়া ভবনের সর্বোচ্চ তলার ওঠার কথা কল্পনাতেও ভেবেছেন? এই রাশিয়ান মডেল কেবল ওঠেননি, তিনি গা হিম করা সব সেলফিও তুলে ফেলেছেন।

পৃথিবীর উচ্চতম ভবনের একটি দুবাইয়ের সায়ান টাওয়ার। এক সঙ্গীকে নিয়ে সর্বোচ্চ তলায় উঠে পড়লেন ২৩ বছর বয়সী তরুণী ভিকি ওদিন্তকোভা। সঙ্গীর হাত ধরে ঝুলে পড়লেন ১০০৪ ফুট ওপরে। নিরাপত্তাব্যবস্থা বলতে কিছুই নেই। দুর্দান্ত সাহসী স্টান্টম্যানের পক্ষেও কাজটি করা অসম্ভব। ইন্সটাগ্রামের জন্য নিখুঁত ছবি তুলতে অনয়াসেই এসব করলেন ভিকি।

সঙ্গীর হাতে হাত রেখে কার্নিশ থেকে পেছনে হেলে পড়লেন। এ এক শ্বাস রুদ্ধকর অবস্থা! এভাবেই সেলফি তুলে ফেললেন। আবার তরুণের হাত ধরে ঝুলে পড়লেন, পড়লে সোজা হাজার ফুট নিচে।

এমনিতেই ইন্সটাগ্রামের তারকা তিনি। ফলোয়ার ৩০ লাখেরও বেশি। এই দুঃসাহসীক কাজ করার আগে ভয় যে লাগেনি তা নয়। কিন্তু আরো জনপ্রিয়তা লাভের নেশায় ঠিকই কাজগুলো করে ফেললেন।

সেন্ট পিটার্সবার্গের এই সুন্দরী বললেন, কাজটি করেছি এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না। যখনই ছবিগুলো দেখি, আমার হাতের তালু ঘেমে ওঠে।

ছবিগুলো দিয়েছেন সোশাল মিডিয়ায়। মুহূর্তেই যে ভাইরাল হয়ে পড়বে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

তবে এসব সেলফি তোলার আগে নিজের ফিটনেসের ওপর ব্যাপক জোর দিয়েছিলেন ভিকি। এমনিতেই স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন করেন তিনি। ছবি পোস্ট করার পর তার অসংখ্য ভক্ত আভিভূত হয়ে পড়েছেন। অনেকের সন্দেহ ছিল, তিনি হয়তো গোপনে নিরাপত্তার জন্য কোনো যন্ত্রপাতি ব্যবহার করেছেন। যদিও করেন থাকেন, তবে তা খোলা চোখ থেকে পারদর্শিতার সঙ্গেই লুকাতে সক্ষম হয়েছেন।

কিন্তু নিরাপত্তা নেননি বলেই জানা গেছে। কাজেই যদি সামান্য গড়মিল হয়ে যেত, তবে তার পরিণতি কল্পনাতে ভাবলেও গা শিউরে উঠবে সবার। সূত্র: খালিজ টাইমস

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here