বাসে টুথপিক ফেলার শাস্তি কারাদণ্ড!

0
268

ম্যাগপাই নিউজ ডেস্ক: ৬০ বছর বয়সী এক ব্যক্তি দাঁত খুঁটানোর কয়েকটি কাঠি বা টুথপিক বাসের আসনে ফেলে এসেছিলেন। এই কাজের নেপথ্যে কোনো ‘অসাধু’ মতলব ছিল কি না, পুলিশ তদন্ত করে দেখছে। দোষী সাব্যস্ত হলে ওই ব্যক্তির দুই বছর পর্যন্ত সাজা হতে পারে।

ঘটনাস্থল সিঙ্গাপুর, আইনশৃঙ্খলার বড্ড কড়াকড়ির জন্য সুবিদিত। তাই দেশটিতে অপরাধ সংঘটনের হারও খুবই কম। বিশ্বের সবচেয়ে কম অপরাধপ্রবণ দেশগুলোর তালিকায় নগর-রাষ্ট্র সিঙ্গাপুর বরাবরই প্রথম সারিতে থাকে। ভাঙচুরের মতো তুলনামূলক ছোটখাটো অপরাধ করলেও সেখানে বেত্রাঘাতের মতো শাস্তি অবধারিত। তা ছাড়া চুইংগাম আমদানি ও বিক্রি সিঙ্গাপুরে নিষিদ্ধ। স্বাস্থ্য রক্ষার জন্যই এমন আইন।

সিঙ্গাপুরের একটি বাস কোম্পানির একটি গাড়ির একাধিক আসন টুথপিক দিয়ে ছিদ্র ছিদ্র করা অবস্থায় পাওয়া গেছে। পুলিশ গত সপ্তাহে এই অভিযোগ পেয়ে তদন্ত শুরু করেছে।

ফেসবুক ব্যবহারকারী এক ব্যক্তি গত মাসের শেষ দিকে একটি ছবি পোস্ট করেন, যাতে দেখা যায় একটি বাসের আসনে টুথপিকগুলো লেগে আছে। অন্তত দুই হাজারবার ছবিটি শেয়ার হয়েছে।

সিঙ্গাপুরে নগণ্য অপরাধে বড় শাস্তির সমালোচনায় মানবাধিকার সংগঠনগুলো মুখর। ২০১৫ সালে জার্মানির দুই নাগরিক মেট্রো ট্রেনে রং স্প্রে করে ছবি আঁকার অপরাধে নয় মাসের কারাদণ্ড এবং তিনটি বেত্রাঘাতের শাস্তি পান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here